Monday , February 27 2017
Home / Uncategorized / আপনার ইনকাম বাড়িয়ে নিন ৪গুন/৫গুন Youtube scalelab দিয়ে। Youtube scalelab কী? scalelab এ যুক্ত হলে আমাদের লাভ না ক্ষতি! কিভাবে scalelab Apply করতে হয় ?

আপনার ইনকাম বাড়িয়ে নিন ৪গুন/৫গুন Youtube scalelab দিয়ে। Youtube scalelab কী? scalelab এ যুক্ত হলে আমাদের লাভ না ক্ষতি! কিভাবে scalelab Apply করতে হয় ?

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আসেন সবাই আসা করি ভালো আসেন।
আজকে আমি আপনাদের এমন একটি জিনিস এর সম্পর্কে জানাবো যেটা নিয়া বর্তমানে বাংলাদেশ এ অনেক মাতা-মাতি সেটা হল
“Youtube scalelab”। কিন্তু হয়তো অনেকে জানা না scalelab জিনিষ টা আসলে কী? এইটা কীভাভে কাজ করে!scalelab এ এড হলে আমাদের লাভ না ক্ষতি!
scalelabএ কীভাবে Approve পেতে হয়? এই সকল বিশয় নিয়ে আজকে আমারা জানবো।
তাহলে চলুন মূল আলোচনায় চলে যাওয়ার আগে কিছু কথা বলে নেই টিউন টা ভাল কড়ে পড়ে-বুজে শুনে Apply করবেন।না বুজে কোন কাজ করবেন না।1
Multi channel networks
যারা Begainer এবং expert বাইয়েরা আসেন তারা ভাল করে বুজে নিয়ম গুলো মেনে চেক করে তারপর Apply করবেন।
“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” কি?
“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” শব্দটির সংক্ষিপ্ত রুপ হল“এম.সি.এন” (scalelab). একে সাচ্ ইঞ্জিনের ভাষায় “ইউটিউব পার্টনারশিপ
নেটওয়ার্ক” বলা হয়ে থাকে।
“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” বা “ইউটিউব পার্টনারশিপ নেটওয়ার্ক”এমন একটি যা কিনা ইউটিউব এর মতো প্ল্যাটফর্মের সাথে কাজ করে।
মূলত“মাল্টি-চ্যানেল নেটওয়ার্ক” বা “ইউটিউব পার্টনারশিপ নেটওয়ার্ক” গুলো সারা দুনিয়ার মাল্টিপল/একাদিক ইউটিউব চ্যানেনলর সাথে অদিযুক্ত হয়ে কন্টেন্ট ক্রিয়েটোড়/ইউটিউব পাবলিশারদের নানাবীড সহায়তা,পণ্য, ক্রয়-প্রোমোশন,প্রোগ্রামিং,ফাণ্ডীং,পাঠনার ম্যানেজমেণ্ট,ডিজিটাল রাইট ম্যানেজমেণ্ট,মনিটাইজেশণ/সেলস, ভিসিটর ডেবলপম্যানট ও চ্যানেলেএর ভিডিও উচ্চ সি.পি.এম. বিজ্ঞাপন শো করিয়ে রাজশের শতকরা বিনিময় করে থাকে।
মোট কথা, “MCN”হল“ইউটিউব অনুমদিত” গুগল অ্যাডসেন্স এর মত একটা প্লাটফম যেখানে ইউটিউব পাবলিশাররা গুগল অ্যাডসেন্স এর
চেয়ে বেশি কিছূ সুযোগ সুবিদা ভোগ করে এবং ইউটিউব পাবলিশারদের ইনকাম গুগল অ্যাডসেন্স এর চেয়ে অনেকগুনে ব্রিধি পায়।
এমনকি “MCN” এর সকল আভন্তরিন ও বাহ্যিক্ক কার্যাবলী “ইউটিউব অনুমদিত”কতগুলো প্রথিষ্টিত সারভিস প্রবাইডারের মাধ্যমে পরিচালিত
হয়, যারা প্রতোকটা“MCN”এর সাথে জড়িত থাকে ইউটিউব পাবলিশারদের সার্বিক উন্নয়নে নিয়জিত থাকে।
আমি আজকে আলোচনা করবো https://www.scalelab.com/ নিয়ে।scale lab হচ্ছে একটা multi-channel network for YouTube channels।বন্দুরা multi-channel network কি তা সম্পর্কে আমি উপরে যথেষ্ট লিখেসি আসা করি বুজতে পেরেসেন।এখন অনেকের মনে প্রশ্ন জেগেসে এই সাইট কি Trusted কিনা বা এইটা কোন দেশের সাইট?এর Founder কে?CEO কে?Website এর valu কত? এই সব গুলো তথ্য জানতে এই লিঙ্ক এ ক্লিক করুন তাহলে শব জানতে পারবেন।
http://www.scamadviser.com/check-website/scalelab.com
এখন অনেক এ বলতে পারেন এইটা যে “Youtube Certifaid“এর প্রমান কি?
অনেক এ হয়তো জানেন http://www.socialblade.com নাম এ একটা সাইট আসে যেইখানে প্রতিদিন এবং প্রতি মাসের updated একটা লিস্ট প্রকাশিত করে সেখানে Top Youtube scalelab Network এবং Top youtube Channel এর লিস্ট থাকে।Firstly, http://www.socialblade.com এ গিয়ে Top List ক্লিক করার সাথে সাথে একটা লিস্ট শো করবে সেইখানে দেখতে পারবেন Top 250 Youtube Networks সেইটাতে ক্লিক করবেন তারপর দেকবেন একটা লিস্ট আসবে টপ Top Youtube scalelab Network এর এটি “World Wide” Ranking দেখাবে সেইখানে 17 নাম্বার লিস্ট এ দেকবেন scale lab।তারপর সেটি তে ক্লিক করবেন তাহলেই দেখতে পারবেন ওদের Membar কতো,ভিউআর কতো এবং সাবস্ক্রাইবার কত।এই সব গুলো জিনিষ দেখার পর মনে হয় আপনারা বুজতে পারবেন কত ভাল মানের একটি Mcn Network এই scale lab।2
scale lab
Scale lab” এর সাথে যুক্ত হলে যেই সকল সুযোগ সুবিদা গুলো পাবেন তা নীচে ঊল্লেখ করা হোল:–
১)“Scale lab” এর সাথে যুক্ত হলে টাকা তোলার জন্য কোন Pin verification এর প্রয়োজন হয় না।
২)“Scale lab”এর সাথে সংযুক্ত হলে“Scale lab”আপনাকে একটা ড্যাশবোর্ড প্রধান করা হবে শেখানে গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” এর
মত শকল রিপোর্ট দেকতে ও জানতে পারবেন।
সেজন্য আলাদা করে গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” তরী করার দরকার নেই।
৩)“Scale lab”চ্যানেল উনুমদিত পেলে অটোমেটিক মনিটাইজ এর জন্য পার্টনারশিপ করে নিবে।
৪)গুগল অ্যাডসেন্স থাকা অবস্তায় কেও চ্যানেল “Scale lab”- এ সংযুক্ত করতে চাইলে সেটা শম্বব হবে। আর জেদিন থেকে “Scale lab”উক্ত
চ্যানেল উনুমদিত করে দিবে সেদিন থেকে গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” এর সাথে কোন প্রকার সম্পর্ক থাকবেনা।সেদিন থেকে সকল
আরনিং রিপোর্ট এবং আনালাইসিস রিপোর্ট “Scale lab” ড্যাশবোর্ড এ প্রদর্শিত হবে।
৫)“Scale lab”- এর চ্যানেল অনুমদন এর নিয়ম মতাবেক চ্যানেনলর মেয়াদ,ভিউ ও সাবস্ক্রাইবার সংখা সঠিক
নতুন চ্যানেল ও সংযুক্ত করতে পারবেন।সেজন্য গুগল অ্যাডসেন্স “হোসটেড অ্যাকাউন্ট” এর সাথে পার্টনারশিপ থাকতে হবে এমন কোন নিয়ম
নাই।
৬)আপনারা জানেন যে,কোন কারনে আপনার ইউটিউব চ্যানেলটি যদি কখনো সাসপেন্ড হয় তাহলে গুগল সেই অর্জিত মুনাফা বেশীরভাগ সময়
দেয়না কিন্তু আপনার চ্যানেল যদি “Scale lab” এর থাকা সময় সাসপেন্ড হয় সেই কাঙ্ক্ষিত অর্জন করা মুনাফা “Scale lab” প্রদান করবে.
অর্থাৎ চ্যানেল হয়ে গেলেও চ্যানেল সাসপেন্ড হওয়ার পূর্ববর্তী মুহূর্ত পর্যন্ত কষ্টের উপার্জিত ইনকাম “Scale lab“এল ড্যাশবোর্ড এর রিপোর্ট
অনুযায়ী আপনার প্রদানকৃত পেমেন্ট অ্যাকাউন্ট এ যথাক্রমে পেয়ে যাবেন।
৭)”Scale lab”- এ চ্যানেল মনিটাইজ করার জন্য যে কোন দেশের নাম এবং লোকেশন দিতে পারেন।বাংলাদেশ দিলে ও কোন সমস্যা নাই।
৮)হ্যাঁ অবশই। “Scale lab”- এর অন্তভুকক্ত শকল চ্যানেল এর সকল ভিডিও তে গুগল অ্যাডসেন্স এর (৪)চার প্রকার অ্যাড ফরম্যাট ছারাও
অতিরিক্ত (২) দুই প্রকার মোট (৬) প্রকার অ্যাড ফরম্যাট ভেইয়ারদের কাছে প্রদরশন করা হবে(২) দুই প্রকার অ্যাড ফরম্যাট এর নাম
হলঃ
১)”নন –স্কিপ্যাবল ভিডিও অ্যাড “অর্থাৎ আপনার ভিউয়ার যদি আপনার ভিডিও টি দেখতে চায় অব্যশই তাকে নন-স্কিপ্যাবল ভিডিও অ্যাড
টি দেখার পরে আপনার ভিডিও টি দেখতে হবে।বিষয়টা হল সেই ভিডিও অ্যাডটি স্কিপ করার কোন অপশন সে পাবে না।
*২. “লং নন –স্কিপ্যাবল ভিডিও অ্যাড “অর্থাৎ দীর্ঘ যেমন:১ মিনিট/১০:৩০ সেকেন্ড /২ মিনিট সময়ের অ্যাড ফরম্যাট চ্যানেলের ভিডিও
গুলোতে প্রদর্শিত হবে।
এমনকি এই অ্যাড ফরম্যাটটিতেও কোন প্রকার স্কিপ করার অপশন ভিউয়ার পাবে না।3
Non-skippable video ads
৯) গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাড এর পাশাপাশি“Scale lab” এর হাই শি.পি.এম. রেটের অ্যাড দেখানো হবে।
১০)যেহেতু “Scale lab”অ্যাডসেন্স বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি হাই সি.পি.এম. রেটের বিজ্ঞাপন দেখানো হবে সেক্ষেত্রে অ্যাডসেন্স ইনকাম এর চেয়ে কম
আরনিং হওয়ার সম্বাবনা 100% নাই। বরং “Scale lab” এর হাই সি.পি.এম. বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের জন্য ২গুন/৩গুন ইনকাম বেড়ে গেলেও অবাক
হওয়ার কিছু নাই।
১১)“Scale lab”- এ অন্তভুক্ত প্রত্যেকটা চ্যানেলের পাবলিসারদের প্রমোশন এর পাশাপাশি “MCN”- টীম আলাদাভাবে চ্যানেল এর ভিউ,সাবস্ক্রাইবার ও কমিউনিটি ইত্যাদি ডেভেলপমেন্ট করে থাকে যার ফলে পাব্লিশেরদের আরনিং অনেকাংশে বেরে যায়।
১২)“Scale lab”-এর সাথে ইউটিউব এর অনুমদিত যে যে
সার্ভিস প্রভাইডার গুলো সার্বক্ষণিক কাজ করে সেগুলো হলঃ-
http://epoxy.tv
http://www.audiomicro.com/royalty-free-music
http://www.epidemicsound.com
http://vidcon.com
https://www.tubebuddy.com
http://genatomic.com
https://www.scalelab.com/brands
https://www.spreadshirt.com
Biggest Channel Development Conversation Community
Video Claims Apps
Study Forum and Blog
Brands Create Energy through Conversation Study Centre
১৩)“Scale lab” কেও যদি আপনার ভিডিও চুরি করে তাহলে ভিডিও ক্লেইম সফটওয়্যারের এর মাধ্যমে ইউটিউব সাপোর্ট টিমের কাছে সরাসরি ক্লেইম নোটিশ পাঠাতে পারবেন।যা কিনা “Scale lab” এর ইউটিউব সাটিফাইড সাপোর্ট টিম সাথে সাথে অ্যাকশন নিয়ে সেই চ্যানেল স্ট্রাইক দেয়।4
video claimer apps
১৪)প্রথম চ্যানেলটি অনুমধন পেয়ে গেলে সেই চ্যানেল এর
“Scale lab”এর ড্যাশবোর্ড থেকে বাকি চ্যানেল গুলো অ্যাড করিয়ে নিতে পারবেন।
১৫)“Scale lab” Ip Address জনিত কোন প্রবলেম নেই।যত খুশি তত অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।যেই কোন পিসি বা মোবাইল দিয়া Login করতে পারবেন।
১৬)ডলার উত্তোলন করার সর্বনিম্ন কোন পরিমাণ নেই।আপনি যদি ১ ডলার ইনকাম করেন মাস শেষে ১ ডলার-ই ১ ডলার উত্তোলন করতে পারবেন।
১৭)”Scale lab“এর পাব্লিশাররা ১৫০,০০০+ ফ্রি ষ্টক ট্রাকস ও ৩০০,০০০+ সাউন্ড ইফেক্ট’স ব্যবহার করতে পারবেন।
১৮)“Scale lab”পাব্লিশারদের জন্য ৮ টা পেমেন্ট সিস্টেম এর মাধ্যমে টাকা নিতে পারবেন।সবচাইতে ভালো সুবিদা হল আপনি চাইলে টাকা,ডলার,রুপি,দিনার আপনার যেই ভাবে দরকার সেই ভাবে নিতে পারবেন।
১৯)অরিজিনিয়াল ভিডিও এর কপির কন্টেন্ট আইডি ইউটিউব থেকে নিয়ে অতিরিক্ত মুনাফা অর্জনের জন্য মনিটাইযেশন করার বাবস্থা করে থাকে।
২০)এই খানে গুগল অ্যাডসেন্স এর মতো “Payee Name” এর কোন জামেলা নেই।যেকোনো সময় যে কোন অ্যাকাউন্ট দিয়ে টাকা তুলতে পারবেন।
এই সুবিদা গুলো পাবেন তাছাড়াও আরও অনেক সুবিদা পাবেণ।সেই সুবিদা গুলো “Scale lab” এ অ্যাড হলে বুজতে পারবেন।
*এখন আমারা জানব “Scale lab” এ Approve পেতে হলে কি কি থাকা প্রয়োজন:
১)আপনের চ্যানেল এ লাস্ট ৩০ দিন এ ১০০০ ভিউ এবং ১০ টা সাবস্ক্রাইবার অর্জন করতে হবে।
২)আপনের চ্যানেল এ কোন প্রকার “Copyright Strick” থাকলে Approve হবে না।
৩)ইউটিউব চ্যানেল এর লোগো এবং চ্যানেল আর্ট থাকতে হবে।
৪)ভিডিও ফুল উইনিক থাকতে হবে।দেখা যায় আপনি একটি ভিডিও একটু কেটে এডিট করে ইউটিউব আপলোড করলেন অ্যাডসেন্স ধরতে পারলো না কিন্তু “Scale lab” তা দরে ফেলবে।তাই খুবি সতর্ক থাকবেন।
৫)ইউটিউব চ্যানেল লেআউট Customaiz করতে হবে।
৬)সাবস্ক্রাইবার এবং লাইক Button Hide করে রাখলে হবে না।
৭)চ্যানেল টি নাম্বার ভেরফাই করতে হবে।
এই সকল নিয়মাবলি মেনে অ্যাপ্লাই করলে আশা করি Approve পাবেন।
*এবার আশি payment System নিয়েঃ
১)“Scale lab”পাব্লিশারদের জন্য ৮ টা পেমেন্ট সিস্টেম এর মাধ্যমে টাকা নিতে পারবেন।সবচাইতে ভালো সুবিদা হল আপনি চাইলে টাকা,ডলার,রুপি,দিনার আপনার যেই ভাবে দরকার সেই ভাবে নিতে পারবেন।
২)৮ টা পেমেন্ট সিস্টেমঃ
*Check-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১০০ ডলার)
*Direct Deposit-(শুধু অ্যামেরিকার জন্য)(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১০০ ডলার)
*Paypal-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*International Wire Transfer-(শুধু নন অ্যামেরিকার জন্য) (উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১০০ ডলার)
*WebMoney-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*Yandex.Money-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*QIWI Wallet- (উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)
*বর্তমানে payonner অ্যাড করা হইসে।-(উত্তোলোন সর্বনিম্ন ১ ডলার)5
scale lab payment system
৩)আমরা জানি যে ইউটিউব প্রতি মাশের ১০ তারিখ কারেন্ট বালেন্সে চূড়ান্ত করে।ইউটিউব চুক্তি অনুযায়ী “Scale lab” এর পুব্লিশারদের ইনকাম চূড়ান্ত করে উক্ত মাসের ১৫ তারিখ এ।
“Scale lab” পরবর্তী মাশের ১-৫ তারিখ ড্যাশবোর্ড এর রিপোর্ট অনুযায়ী পুব্লিশারদের পেমেন্ট দিয়ে থাকে। যদি ও একটু দেরি তে দায় তা ও ভাল কারন অ্যাডসেন্স এর মত এত বেশি সময় দরে Pending এ রাখে না।
*এই হল “Scale lab” পেমেন্ট সিস্টেম।
এইবার আমরা শিখবো কিভাবে “Scale lab” Aplly করতে হয়ঃ
১)প্রথমে এই http://www.scalelab.com ওয়েবে যাওয়ার পরে “Join Now“বাটনে ক্লিক করতে হবে।
২)“Apply Now With YouTube” ক্লিক করে আপনের চ্যানেলের ইমেইল টি দিয়ে login করতে হবে যে চ্যানেল টি “Scale lab”এ join করাতে চান সেটি সিলেক্ট করতে হবে।
৩)“First Name”ও“Last Name”এ আপনের নিজের নাম লিখতে হবে।
৪)তারপর ট্রামস অ্যান্ড কন্ডিশনের “I agree”সাথে চেক-মার্ক/টিক চিহ্ন দিয়ে “APPLY NOW”এ ক্লিক করতে হবে।
৫)“APPLY NOW”এ ক্লিক করার পরেই আপনের চ্যানেল এর ইমেইলটি তে একটি মেইল আসবে।এই মেইল টি আসলে বুজবেন আপনের চ্যানেল APPLY হয়েসে।
৬)৪৮ ঘণ্টার মধ্যে“Scale lab”চ্যানেল অনুমোধন দিলে আপনাকে আরেকটি মেইল দিবে এবং Approve না পেলে ও তা জানিয়ে দিবে।যারা Approve পাবেন তাদের আরেকটি মেইল এ বলে দিবে কিবাবে জয়েন করতে হয়।তারা image আঁকরে দিয়ে দিবে দেখলেই বুযতে পারবেন।
৭)ইমেইল আসা ধারাবাহিক নির্দেশনা অনুযায়ী ইউটিউব ড্যাশবোর্ড থেকে কনফার্ম করার পড় “Scale lab” অটোমেটিকভাবে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই তৃতীয়ভারের মত একটি ইমেইল পাঠাবে।উক্ত ইমেইলটির “LOG INTO YOUR DASHBOARD” অপশনটিতে ক্লিক করার পর নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী Password দিবেন।(মুলত Password টি হল “Scale lab” এর ড্যাশবোর্ড লগইন করার Password)।
৮)Password দিয়ে “Scale lab”ওয়েবসাইটের লগিইন এ ক্লিক করে চ্যানেল এর ইমেইল দিয়ে ড্যাশবোর্ড এ প্রবেশ করতে পারবেন।এর পর থেকে এই ইমেইল অ্যান্ড Password দিয়ে “Scale lab”প্রবেশ করতে পারবেন।
৯)ড্যাশবোর্ড পাওয়ার সাথে সাথে চ্যানেল এর শকল রিপোর্ট দেখতে পারবেন কিন্তু ৭২ ঘণ্টা পর পর চ্যানেল এর আরনিং রিপোর্টগুলো প্রদর্শিত হবে।
১০)এখন আরকি কায শেষ এইবার ৮ টা Peyment অপশন থেকে যেটা ভাল লাগে অ্যাড করিয়ে নিন।
সবশেষে গুরুত্বপূর্ণ কায হলঃ
মনে রাখবেন,উপরোক্ত সকল কাজগুলো সম্পন্ন হওয়ার পরে অবশ্যই ইউটিউব চ্যানেল এর ভিতর থেকে প্রতিটি ভিভিও
আবার নতুন করে মনিটাইজ করতে হবে।ভিভিও এর Edit এ যাওয়ার পরে মনিটাইজ অপশন এ ক্লিক করে “Usage Policy” অংশের “Monitize in all country” সিলেক্ট করে “Non-skippable video ads” and “Long non-skippable video ads”ফরম্যাটে গুলো চেক-মার্ক করে“Save Changes”বাটনে ক্লিক করতে হবে।এই পক্রিয়াটি শেষ করে ইউটিউব ড্যাশবোর্ড আরনিং প্রদর্শিত হবে।
*এখন কথা হল এত সুযোগ সুবিদা দিয়ে “Scale lab” এর লাভ কি?
উত্তরঃ তারা ইউটিউব পাব্লিশারদের উচ্চ মাত্রার অর্জিত মুনাফা থেকে দৃঢ়তার সাথে শতকরা ৬৫/৩৫ ভাগ বিনিময় করে থাকে অর্থাৎ আপনি পাবেন টোটাল ইনকাম ৬৫ ভাগ।কিন্তু ভয় পাবার কিছুই নাই ওদের ৩৫ ভাগ কেটে নেয়ার পর ও যা থাকে তা গুগল অ্যাডসেন্স এর থেকে ২গুন/৩গুন বেশি হবে।তাদের আড়েক টি বিশেষ লাভ হোল আপনের ভিডিও কন্টেন্ট দিয়ে “Scale lab” Affiliate করতেসে এবং ভিবিন্ন company গুলোর সাথে চুক্তি করে তাদের Marketing করসে।
***তাহলে আর দেরি না করে আপনের চ্যানেলটি “Scale lab”- এর সাথে সংযুক্ত করে আপনের ইনকাম গুগল অ্যাডসেন্স ইনকাম থেকে কয়েক গুন বারিয়ে নিন। সরাসরি Video দেখতে  এখানে কিলিক করুন

About Admin

Check Also

কিভাবে ইউটিউব থেকে আয় করবেন ।

অনলাইনে আয়ের হাজার হাজার পদ্ধতির মধ্যে ইউটিউব থেকে আয় একটি জনপ্রিয় উপায়। বিশ্বের সবচেয়ে বড় …

Leave a Reply